fbpx

অ্যাক্টিভ পাওয়ার রিঅ্যাক্টিভ পাওয়ার এফারেন্ট পাওয়ার

অ্যাক্টিভ পাওয়ার: এসি সোর্স থেকে আসা পাওয়ারের যে অংশকে সার্কিটের রেজিস্টিভ লোড টেনে নেয় তাকেই true পাওয়ার বা অ্যাক্টিভ পাওয়ার বলে । এখন ধরা যায় একটি সার্কিটে একটি   লাইট আছে ওই সার্কিটে পাওয়ার সাপ্লাই দেওয়া  হল  লাইট থেকে আলো পাওয়ার জন্য। সার্কিটে সরবরাহকৃত পাওয়ারেরযে অংশটুকু শক্তিতে রূপান্তরিত হয়ে আলো দিচ্ছে সে অংশটুকু হল একটিভ পাওয়ার। অ্যাক্টিভ পাওয়ার হলো কাজের ক্ষমতা বা  অপচয়কৃত শক্তি ।  অ্যাক্টিভ পাওয়ারকে  P দিয়ে প্রকাশ করা হয়।  

Active power P = V x I cosϕ = V I cosϕ.

 

রিঅ্যাক্টিভ পাওয়ারঃ এসি সোর্স থেকে আসা পাওয়ারের যে অংশকে সার্কিটে নিষ্ক্রিয় অবস্থায় থাকে তাকে রিঅ্যাক্টিভ পাওয়ার বলে। সার্কিট এ ব্যবহৃত ইন্ডাক্টর বা ক্যাপাসিটিভ যুক্ত লোড ইলেকট্রিক পাওয়ার কে শোষণ করে সেটাই রিঅ্যাক্টিভ পাওয়ার। রিঅ্যাক্টিভ পাওয়ার হলো অদৃশ্যমান শক্তি । রিঅ্যাক্টিভ পাওয়ারকে  দিয়ে Q  প্রকাশ করা হয়। 

Reactive power Pr or Q = V x I sinϕ = V I sinϕ. 

 

এফারেন্ট পাওয়ারঃ এসি সোর্স থেকে যেটুকু ইলেকট্রিক পাওয়ার সাপ্লাই করা হয় তাকে এফারেন্ট পাওয়ার বলে। সার্কিটে সবগুলো যে পাওয়ার দেওয়া হয় বা সাপ্লাই করা হয় তাই এফারেন্ট পাওয়ার।এফারেন্ট পাওয়ারকে দিয়ে  S  প্রকাশ করা হয় ।

Apparent power Pa or S = V x I = VI

active , reactive & apparence power

এখন এই তিন ধরনের লোড কে বোঝার জন্য একটি বাস্তব উদাহরণ দেওয়া যায়। একটি গ্লাসে  কোকাকোলা ঢাললে প্রথমে দেখা যায় নিচে কিছু তরল অংশ আর উপরে কিছু ফেনার অংশ তৈরি হয়েছে । কিছুক্ষণ পরে দেখা যায় উপরের ফেনার অংশটি উধাও হয়ে গেছে এবং নিচের তরল অংশটি রয়ে গেছে।এখানে গ্লাসে ফেনা সহ তরল অংশ কোকটুকু এফারেন্ট পাওয়ার।  উড়ে যাওয়া  ফেনা টি রিঅ্যাক্টিভ পাওয়ার বা অদৃশ্যমান শক্তি। এবং অবশিষ্ট তরল অংশটি অ্যাক্টিভ পাওয়ার বা অপচয়কৃত শক্তি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *